ম্যারাডোনা নন, আর্জেন্টাইনদের কাছে সেরা মেসি

<![CDATA[

কাতার বিশ্বকাপ জেতার পর আর্জেন্টিনার সেরা ফুটবলারের বিতর্কে ডিয়েগো ম্যারাডোনার সঙ্গে লিওনেল মেসির লড়াইটা আগের চেয়ে আরও বেশি জমে উঠেছে। বিভিন্ন জরিপের ফলও যাচ্ছে মেসির পক্ষেই। জানুয়ারিতে আর্জেন্টাইনদের মধ্যে এক জরিপ করা হয়, সে জরিপেও বেশ বড় ব্যবধানে ম্যারাডোনাকে পেছনে ফেলেছেন ৩৬ বছর পর আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ এনে দেওয়া মেসি।

আর্জেন্টিনার একটি জরিপকারী প্রতিষ্ঠান ‘ওপিনা আর্জেন্টিনা’ সম্প্রতি আর্জেন্টিনার সেরা ফুটবলার বেছে নিতে জরিপ চালায়। আর্জেন্টিনার সরকার, রাজনৈতিক দল ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে কৌশলগত পরামর্শ দেওয়া এই প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে তথ্য বিশ্লেষণ ও জনমত জরিপে সংখ্যাগরিষ্ঠ আর্জেন্টাইন মেসিকেই দেশটির ইতিহাসের সেরা ফুটবলার হিসেবে বেছে নিয়েছে। জাতীয়ভাবে পরিচালিত এই জরিপে মিলেছে অবাক করা ফল।

 

গত ৯ জানুয়ারি থেকে ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত আর্জেন্টিনার বিভিন্ন জায়গায় পরিচালিত এই জরিপে অংশ নেওয়া ১১০০ আর্জেন্টাইনের মধ্যে শতকরা ৬০ শতাংশ মেসিকে সেরা ফুটবলার হিসেবে বেছে নিয়েছে। ২৮ শতাংশের ভোট গেছে ম্যারাডোনার বাক্সে। আর বাকি ১২ শতাংশ হয় ‘উত্তর দেননি নতুবা জানেন না।’

আরও পড়ুন:পিএসজি ছাড়ছেন মেসি, ফিরবেন বার্সায়!

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কা ও আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যম ‘ক্লারিন’ জানিয়েছে, নারীদের মধ্যে জনপ্রিয়তায় ম্যারাডোনার চেয়ে অনেক এগিয়ে মেসি। ৬৯ শতাংশ নারী সেরার প্রশ্নে মেসিকে এগিয়ে রেখেছেন।

অবাক করার বিষয় হলো, যে প্রজন্মটা ম্যারাডোনা ও মেসি উভয়ের খেলা দেখার সুযোগ পেয়েছে তাদের কাছেও মেসিই সেরা। ৫০ বছর পেরিয়ে যাওয়া বয়স্কদের শতকরা ৬৩ জন মনে করেন মেসি ম্যারাডোনার চেয়ে সেরা। ৩০ থেকে ৪৯ বছর বয়সীদের মধ্যেও মেসির জনপ্রিয়তা বেশি। এই বয়সইদের ৫৩ শতাংশের চোখেই মেসি সেরা। তরুণ প্রজন্মের কাছে অনুমিতভাবে সেরার প্রশ্নে এগিয়ে মেসি। ১৮ থেকে ২৯ বছর বয়সীদের ৬২ শতাংশের মতে মেসি সেরা। ৩৫ শতাংশ অবশ্য মনে করে ম্যারাডোনা সেরা।

আরও পড়ুন:চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সময়ে দাদিকে স্মরণ করেছিলেন মেসি

তবে সমাজের নীচু শ্রেণিতে যাদের বাস, তাদের কাছে জনপ্রিয়তায় আবার এগিয়ে ম্যারাডোনা। ওপিনা আর্জেন্টিনা টুইটে লিখেছে, ‘মেসির আধিপত্যের পরও জনপ্রিয়তার কোটায় ডিয়েগোকেই সবাই বেশি পছন্দ করে। আর্থসামাজিক অবস্থানের নিচু স্তরে ৪৯ শতাংশ মনে করেন, ম্যারাডোনাই সেরা আর ৪৫ শতাংশ মনে করেন মেসি সেরা।’

১৯৮৬ সালে একক নৈপুণ্যে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতান ম্যারাডোনা। সেই বিশ্বকাপে তার পারফরম্যান্সকে একক নৈপুণ্যের সেরা প্রদর্শনী হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয়। সর্বকালের সেরা ফুটবলার হিসেবে পেলের সঙ্গে তুলনা করা হয় তার। অন্যদিকে ম্যারাডোনার ৩৬ বছর পর ২০২২ বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে শিরোপা এনে দেন মেসি। নির্বাচিত হন বিশ্বকাপের সেরা ফুটবলার হিসেবে। জেতেন গোল্ডেন বল।

]]>

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button