মাদারীপুরে অবাধে বিক্রি হচ্ছে মেয়াদোত্তীর্ণ গ্যাস সিলিন্ডার

<![CDATA[

মাদারীপুরে শহর থেকে গ্রাম সবখানেই হাতের কাছেই মিলছে বিভিন্ন কোম্পানির মেয়াদোত্তীর্ণ গ্যাস সিলিন্ডার। নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই পুরনো বোতলের মেয়াদোত্তীর্ণ সিলিন্ডার বেশি দামে বিক্রি করছে অসাধু ব্যবসায়ীরা।

সম্প্রতি মাদারীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক মো. সফিকুল ইসলাম বলেন, যত্রতত্র গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার আর বিক্রির লাগাম টানতে না পারলে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

শুধু এই রেস্টুরেন্টেই নয়। জেলার সবকটি উপজেলার হোটেল, রেস্তোরাঁ আর অধিকাংশ বাসাবাড়িতে ব্যবহার করা হয় বিভিন্ন কোম্পানির গ্যাস সিলিন্ডার। বিস্ফোরকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর, ফায়ার সার্ভিস, জেলা প্রশাসন, পরিবেশ অধিদফতরের অনুমতি ছাড়াই হাটবাজারগুলোতে এই সিলিন্ডার বিক্রি করছে অসাধু ব্যবসায়ীরা। পুরনো বোতলেই সিলিন্ডার বাজারজাত করায় বাড়ছে ঝুঁকি।

আরও পড়ুন: গ্যাস সিলিন্ডারে উৎপাদন, বেশি খরচে বিপাকে শিল্পোদ্যোক্তারা

কয়েকদিন আগে মাদারীপুরের শিবচরের আল রিফাত রেস্টুরেন্টের ভেতরে গ্যাস সিলিন্ডার লিক হয়ে আগুন ধরে। এরপর শুরু হয় চিৎকার। খবর পেয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিস। প্রতিষ্ঠানের মালিক ফরহাদ বেপারী জানেন না, কোন কোম্পানির সিলিন্ডার ব্যবহার করা হচ্ছে তার রেস্টুরেন্টে।

মাদারীপুরে অর্ধশত পাইকারি দোকানে গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি করা হয়। আর খুচরা দোকানের সংখ্যা কয়েকশ’।

জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, মেয়াদোত্তীর্ণ গ্যাস সিলিন্ডার ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

 

]]>

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button