মানকাডিং আউটের আইনে যোগ হলো নতুন উপধারা

<![CDATA[

বিগ ব্যাশে অ্যাডাম জাম্পার মানকাডিং আউটের চেষ্টার পর এবার ক্রিকেটে নতুন উপধারা যোগ করল এমসিসি। আইনের ৩৮ দশমিক ৩-এর ২ ধারায় যুক্ত করা হয়েছে নতুন এই উপধারা। যেখানে স্পষ্ট করে বলে দেয়া হয়েছে, কোন অবস্থায় একজন বোলার ব্যাটসম্যানকে এই পদ্ধতিতে আউট করলে সেটি আউট বলে গণ্য হবে।

চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে বিগ ব্যাশে মেলবোর্ন ডার্বিতে মুখোমুখি হয়েছিল স্টারস ও রেনেগেডস। সে ম্যাচে স্টারস বোলার অ্যাডাম জাম্পা রানআউট করেন ননস্ট্রাইকে থাকা টম রজার্সকে। এ ধরনের আউটকে সাধারণত বলা হয় ‘মানকাডিং’। যদিও তৃতীয় আম্পায়ার রিপ্লে দেখে সেটিকে পরে আর আউট দেননি। নটআউট ঘোষণা করা হয় রজার্সকে।

আরও পড়ুন: ফাঁদে পড়ে কোটি টাকা খোয়া গেল আইসিসির!

এমসিসির পক্ষ থেকে জানানো হয়, বল হাত থেকে ছাড়ার মুহূর্তেই, হাত নামিয়ে এনেছিলেন জাম্পা। কোনো ব্যাটসম্যানকে তখনই রানআউট করা যাবে, যদি বোলারের হাত বল ডেলিভারির ‘পয়েন্টে’ পৌঁছানোর আগেই তিনি ক্রিজ ছাড়েন। এ ক্ষেত্রে রজার্স আগেই ক্রিজ ছেড়ে গেলেও জাম্পা ডেলিভারি পয়েন্টে চলে যাওয়ায় আর সেটা আউট হয়নি। এদিকে এমসিসি তৃতীয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে সঠিক বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করলেও নতুন একটি অস্পষ্টতা তৈরি হয় এ নিয়ে। শুরু হয় তর্কবিতর্ক।

আরও পড়ুন: সরফরাজকে অবজ্ঞা, মডেলদের হাতে ব্যাট ধরিয়ে দেয়ার দাবি গাভাস্কারের!

বিষয়টি পরিষ্কার করতেই এবার সংশ্লিষ্ট ক্রিকেট আইনে নতুন একটি উপধারা যোগ করেছে এমসিসি। আইনের ৩৮.৩-এর ২ ধারায় যুক্ত করা হয়েছে, ‘যে মুহূর্তে বোলারের কাছ থেকে সাধারণত বল ছোড়ার আশা করা হয়, তার আগেই যদি নন-স্ট্রাইকার ব্যাটসম্যান ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে যান, তাহলে এই আইনের অধীন তাকে রানআউট করা যাবে না।’ নতুন এ উপধারা সংযোজনকে অবশ্য ‘আইনি অর্থের বস্তুগত পরিবর্তন নয়’ বলে উল্লেখ করেছে এমসিসি। এক বিবৃতিতে তারা উল্লেখ করেছে, ‘খেলোয়াড় ও আম্পায়াররা আগে থেকেই জানত এ আইন। তবে কিছু শব্দগত কারণে অস্পষ্টতা দেখা দিয়েছিল কারো কারো মাঝে।’ এখন নতুন উপধারা সংযোজনের মাধ্যমে আরও পরিষ্কার করে দেয়া হলো বিষয়টি।

]]>

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button